ছবি সমালোচনা – বুলবুল পাখি – ক্যাপ্টেন কাওছার মোস্তফা

ছবি সমালোচনা – বুলবুল পাখি – ক্যাপ্টেন কাওছার মোস্তফা


এক্সিফ তথ্য

Camera Canon EOS 7D
Exposure 0.004 sec (1/250)
Aperture f/6.3
Focal Length 500 mm
ISO Speed 1250
Exposure Bias 0 EV
Flash Off, Did not fire
Date and Time (Modified) 2013:12:30 20:45:41
Copyright Capt.Kawsar Mostafa
Exposure Program Shutter speed priority AE

নিসর্গের ছবি সমালোচনা বিভাগের জন্য এই ছবিটি আমি নির্বাচিত করেছি। মূলত দুটি কারণে ছবিটিকে বেছে নিয়েছি – প্রথমত: এটি খুবই পরিচিত একটি পাখির ছবি এবং পাখিটির নাম বুলবুল পাখি। বাংলাদেশে অনেক ধরনের বুলবুল পাখি দেখতে পাওয়া যায় তবে এর মধ্যে Red Vented Bulbul কেই সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। দ্বিতীয় কারণটি হলো ছবিটি অত্যন্ত পরিচ্ছ্ন্ন এবং পাখিটিকে চিহ্নিত করার জন্য যত উপাদান রয়েছে তার সবকটিই এই ছবিতে স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে।

ছবির কৌশলগত দিক বিচারে ছবিটির এক্সপোজার ভালো হয়েছে বলে মনে করছি। যখন ছবিটি তোলা হয়েছে তখন সম্ভবত ছায়ার মধ্যে বসে ছিল। এবং খুব সম্ভবত সরাসরি আলো পাখিটির উপর পড়েনি। তবে পোস্ট প্রসেস করে ব্রাইটনেস একটু বাড়ালো হয়তো আরেকটু নজর কাড়তো।

চমৎকার এবং প্রায় পারফেক্ট ফোকাস হয়েছে। ফোকাসের ক্ষেত্রে আমি যেটির উপর জোর দিচ্ছি তা হলো পাখির ঠোঁট থেকে লেজ পর্যন্ত পুরো শরীরই ফোকাসে এসেছে। অনেকসময় আমরা শুধু পাখির চোখের এবং মুখমন্ডলের আশেপাশরে অংশটুকু ফোকাসে দেখতে পাই এবং শরীরে বাকী অংশগুলো আউট অব ফোকাস থাকে। কিন্তু এ ছবিটির ফোকাসের বিচারে চমৎকার হয়েছে। এর একটি কারণ হলো ছবিটি যথেষ্ট দূর থেকে নেয়া হয়েছে যা আমরা ফোকাল লেন্থ থেকেও বুঝতে পারি।

জমিনের গভীরতা বা ডেপ্থ অব ফিল্ড চমৎকার স্মুথ এসেছে। যেটা সম্ভব হয়েছে দীর্ঘ ফোকাস দুরত্বের লেন্সের কারণে এবং অপেক্ষাকৃত বড় এপারচারের কারণে। যদিও এপারচার ৪ এ নেয়া গেলে ব্যাকগ্রাউন্ড আরো স্মূথ দেখাতো কিন্তু সেটি সম্ভব হয়নি লেন্সের সীমাবদ্ধতার কারণে।

প্রথম দেখাতেই ছবিটি যা বলছে তা হলো পাখিটির কোন একটি একশন। অর্থাৎ পাখিটি চুপচাপ বসে থাকলেও অত্যন্ত সতর্কভাবে ফটোগ্রাফারের দিকে নজরে রেখেছে। খুব সম্ভবত পাখিটি উড়ে যাওয়ার ঠিক আগের মুহূর্তে ছবিটি তোলা হয়েছে। যে কারণে স্হির চিত্র হলেও ছবিতে একধরনের গতিময়তা রয়েছে।

ছবিটির উপরের দিকে স্পেইস না থাকায় কম্পোজিশন পারফেক্ট হয়নি। ৫০০মিমি লেন্সের কারণে পাখিটি ফুল ফ্রেমে চলে এসেছে কিন্তু খুব সম্ভবত ফোকাসিং করা হয়েছে পাখিটির পেটের দিকে। একটু জুম আউট করে পাখিটিকে একটু নিচে বামে রেখে কম্পোজ করা গেলে আরো ভালো আসতো। অথবা জুম আউট করে ছবি তুলে সেটাকে পোস্ট প্রসেস করে রিকম্পোজ করা যেতো।

এক্সোপোজার: ৪.৫/৫
ফোকাস: ৫/৫
জমিনের গভীরতা: ৪.৫/৫
কম্পোজিশন: ৪/৫
ইমপ্যাক্ট: ৪/৫

সর্বমোট: ২২/২৫
সার্বিক রেটিং:  ৮.৮/১০

+ There are no comments

Add yours

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.